Ticker

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

Responsive Advertisement

দাঁত সাদা করার প্রাকৃতিক উপায়

kokohealthytip.com
 সুন্দর হাসির জন্য ধবধবে ও চকচকে সাদা দাঁতের কোন বিকল্প নেই। তাই দাঁত সাদা ও সুন্দর করতে আমরা কত কিছুই না ব্যবহার করি। সুন্দর দাতের সুন্দর হাসির জন্য আপনি পরিবার থেকে শুরু করে বন্ধুমহলে হয়ে উঠতে পারেন আকর্ষণীয়।



কিন্তু অনেক সময় কালো বা হলদে দাঁতের কারণে হাসতে গিয়ে পড়তে হয় দ্বিধা-লজ্জায়। জীবনযাপন আর কিছু অভ্যাসের কারণে আমাদের দাঁত হলুদ ও কালো নষ্ট হয়ে যায়।

সাধারণত মদ্যপান, অতিরিক্ত চা-কফি, ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতার অভাব, ধূমপান প্রভৃতি কারণে দাঁতের রং নষ্ট হয়। দাঁতের স্বাভাবিক রং ফেরাতে অনেকেই চিকিৎসকের কাছে যান। নিয়মিত একটু দাঁতের যত্ন নিলেই এ সমস্যা থেকে মুক্তি ও রেহায় পাওয়া যায়।


দাঁত সাদা করার প্রাকৃতিক উপায়



লেবু ও বেকিং সোডা -

 প্রথমে এক চামুচ বেকিং সোডা নিন। তার সাথে হাফ চামুচ পরিমাণ লেবুর রস নিন। এই দুই উপাদান এক সাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

 এই উপাদানটি ব্যবহার করবেন। সেটা কিভাবে করবেন, অবশ্যই জানা জরুরী নরম দেখে একটি ব্রাশ নিন। তার সাথে ঐ উপাদানটি লাগিয়ে নিবেন, ঘড়ি ধরা ১ থেকে ২ মিনিট আপনার দাঁতে হালকা চাপ দিয়ে এটি ব্রাশ করুন। 

তার পরে মুখটা ধুয়ে ফেলুন। এই ভাবে সাপ্তাহিক ১ দিন এটি ব্যবহার করলে আপনার দাঁত হবে মুক্তার মতো ধবধবে ফর্সা। অবশ্যই এটি সাপ্তাহিক একবার ব্যবহার করবেন, এর বেশি ব্যবহার করবেন না।


কলার খোসা -

 শুরুতেই আপনাদের লাগবে একটি পাকা কলার খোসা। কলাটি উল্টো দিক থেকে খোসাটা ছাড়িয়ে নিবেন সুন্দর করে। তার পরে টুকরো টুকরো করে খোসা গুলো কেটে নিবেন ৫ থেকে ৬ টি। 

কলাটির খোসার সাদা অংশ ব্যবহার করতে হবে। এটি কিভাবে ব্যবহার করবেন, একদম সোজা সকালে ঘুম থেকে উঠে, হাতে তিন চারটি কলার খোসার টুকরো নিন। 

খোসার সাদা অংশটি দাঁতের উপরে লাগিয়ে নিয়ে, হালকা চাপ দিয়ে দাঁতের উপরে ঘষুন। ২ থেকে ৩ মিনিট, তার পরে আপনার পছন্দের টুথপেষ্ট দিয়ে দাঁত ব্রাশ করে ফেলুন। এই ভাবে মাত্র সাপ্তাহিক দুই তিন এটি ব্যবহার করলে আপনার দাঁত হবে ধবধবে ফর্সা ও সুন্দর। 


গ্রিন–টি -

 দুধ–চা দাঁতে দাগ ফেলে দেয়। অন্যদিকে গ্রিন–টিতে থাকে প্রচুর ফ্লোরাইড, যেটি দাঁতে হলুদ রং পড়তে বাধা দেয় এবং দাঁতকে সাদা করে।


গুড়া দুধ -

 গুড়া দুধ দিয়েও দাঁত সাদা ও সুন্দর করা যায়। এটা অনেকেই জানেনা, অবশ্যই করা যায়, সেই জন্য প্রথমেই লাগবে আপনার এক চামুচ গুড়া দুধ, এবং এক চামুচ সাদা টুথপেষ্ট এক সাথে ভালো করে মিশিয়ে নিবেন। 

এটি কিভাবে ব্যবহার করবেন, সেই জন্য লাগবে নরম দেখে সুন্দর একটি ব্রাশ, তার সাথে যোগ করুন ঐ মিশ্রণটি। ব্রাশের সাথে লাগিয়ে দাঁতের উপরে সুন্দর করে ব্রাশ করুন তিন থেকে চার মিনিট।

তার পরে মুখটা ধুয়ে ফেলুন। এই ভাবে সাপ্তাহিক দুই দিন এটি নিয়মিত ব্যবহার করলে আপনার দাঁত ধবধবে ফর্সা ও মজবুত হবে।


লবণ -

 লবণ দিয়ে ও দাঁত চকচকে ও সুন্দর হয়। অনেকেই জানেনা, জানলে অবাক হবেন। লাল দাঁতকে সাদা করার জন্য প্রথমেই লাগবে হালকা কিছু পরিমান লবণ, হাফ চামুচ টুথপেষ্ট এবং হাফ চামুচ লেবুর রস। এই তিনটি উপাদান ভালো করে মিশিয়ে নিবেন।

 তার পরে এটি ব্যবহার করবেন। সুন্দর দেখে একটি ব্রাশ নি, তার সাথে ঐ উপাদান গুলো লাগিয়ে নিয়ে, দাঁতের উপরে হালকা চাপ দিয়ে ব্রাশ করুন। মাত্র ১ থেকে দের মিনিট, ব্রাশ করার পরে ১ মিনিটের জন্য রেখে দিন। 

পরে মুখটা ধুয়ে ফেলুন। সাপ্তাহিক এক দিন এটি ব্যবহার করবেন, এর বেশি না। মাত্র কিছুদিন দাঁতে লাগালে দেখবেন আপনার দাঁত আগের থেকে দ্বিগুণ ফর্সা হবে।


মাশরুম -

 দাঁতকে সাদা করতে মাশরুম খেতে পারেন। এতে প্রচুর পরিমাণে পলিস্যাকারাইড থাকে, যা ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে ও ডেন্টাল প্লাক হতে দেয় না।


Post a Comment

1 Comments