Ticker

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

Responsive Advertisement

ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া টিপস

 

kokohealthytip.com


মানুষ জন্মগত ভাবে সকলেই কিন্তু ফর্সা নয়। কেউ কালো কেউ ফর্সা কেউ শ্যামলা। সব মিলিয়ে এক এক জনের গায়ের রঙ ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। ত্বকে ঠিকমতো যত্ন না নেয়ার কারণে। মুখের ত্বকে অনেক রকম দাগ ছোপ পরে যায়। কেউ বা আবার দামি দামি ক্রিম ও লোশন ব্যবহার করে সুন্দর ও ফর্সা চাই। সেই জন্য আপনাদের মাঝে কিছু ঘরোয়া উপায় শেয়ার করব। যা দিয়ে খুব সহজে আপনার কালো ত্বক ফর্সা ও সুন্দর হবে।




<<আরো দেখুন ত্বক ফর্সা করার সহজ উপায় 

<<<ঠোঁট লাল ও গোলাপি করার উপায় 


বেসন


ত্বক সুন্দর ও ফর্সা করতে বেসনের অনেক গুরুত্ব রয়েছ। ত্বকের রঙ উজ্জ্বল ও ফর্সা করে। সেই সাথে মুখের ত্বকে তরুণ রাখতে সাহায্য করে।
তার জন্য লাগবে, তিন চামুচ বেসন এবং দুই চামুচ কাঁচা দুধ। ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে মুখে লাগান। ২৫/৩০ মিনিট পরে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখটা সুন্দর করে ধুয়ে ফেলুন। এই ভাবে সাপ্তাহিক ১/২ দিন ব্যবহার করতে পারেন। তবে তৈলাক্ত মুখে ব্যবহার করা যাবে না এই প্যাকটি।


কলা


কলা আমাদের অতি পরিচিত ফল। খেতে যেমন শুসাধু তেমনি তার ভিতরে গুণে ভরপুর। ত্বক সুন্দর করা জন্য, প্রথমে ১/২ চামুচ কলার পেষ্ট তার সাথে ১ চামুচ মধু ভালো করে মিশিয়ে নিবেন। আস্তে আস্তে সুন্দর করে পুরো মুখে লাগিয়ে দিবেন। ঘড়ি ধরা ২৫/৩০ মিনিট পরে মুখটা ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই ভাবে সাপ্তাহিক দুই দিন ব্যবহার করতে পারেন।



টকদই

টকদই শুধু আমরা খাই না। এর বহু গুনাগুন আছে। ত্বক ফর্সা করতে টকদই ব্যবহার করতে পারেন। তিনি চামুচ দই তার সাথে নিবেন ১ চামুচ মধু। ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে মুখের ত্বকে লাগিয়ে দিবেন। ২৫/৩০ মিনিট পরে মুখটা ধুয়ে ফেলুন।
নিয়মিত টকদই ব্যবহার করলে ত্বক দুরত্ব উজ্জ্বল ও সুন্দর হবে। শুধু মাখলেই সুন্দর হয় না। এটি খাইলোও ত্বক ফর্সা সুন্দর হয়।
তাই আপনাদের খাদ্য তালিকা টকদই অবশ্যই রাখবেন।



মধু ও লেবু


মধু এবং লেবু আমরা প্রতিনিয়তি খেয়ে থাকি। ত্বক ফর্সা এবং সুন্দর করতে এর গুরুত্ব রয়েছে অনেক। তার জন্য লাগবে, দুই চামুচ মধু, এবং এক চামুচ মধু। ভালো করে মিশিয়ে একটা প্যাক বানিয়ে মুখে ব্যবহার করুন। ২৫/৩০ মিনিট রেখে দিয়ে তার পরে ধুয়ে ফেলুন। আপনার মুখের ত্বক পরিষ্কার করে এবং  ত্বককে ডিটক্সিফাই করে তোলো লেবুর রস। তার সাথে মধু সুন্দর ভাবে আপনার মুখের ময়েশ্চার ধরে রাখে এবং ত্বক টান টান রাখে। এটি সাপ্তাহিক দুই দিন ব্যবহার করতে পারেন।



ওটস

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি ও ফর্সা করার জন্য ওটস বেশ গুনাগুন রয়েছে। এক চামুচ টকদই তার সাথে দুই চামুচ ওটস ভালো করে মিশিয়ে ২৫/৩০ মিনিট রেখে দিন। তার পরে মুখে ভালো করে লাগিয়ে দিবেন। মুখে লাগিয়ে ১৫/২০ মিনিট রেখে দিন। পরে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সাপ্তাহিক এক দিন ব্যবহার করতে পারেন।




পানি

পানির অপর নাম জীবন এইটা সবাই জানি। ত্বকে সুন্দর রাখতে হলে আপনাকে প্রচুর পরিমাণ পানি পান করতে হবে। ত্বককে ময়শ্চারাইজ অনেক গুরুত্বপূর্ণ!! ত্বকের ভেতর থেকে হাইড্রেট করে শরীর থেকে টক্সিন বের করে দেয় পানি। মুখের তেলের ভারসাম্য বজায় রাখে পানি। মুখের ব্রণ বলিরেখা কমাতে ও সাহায্য করে থাকে পানি। তাই আমরা প্রচুর পরিমাণ পানি পান করব।






Post a Comment

0 Comments